চুয়াডাঙ্গা সদর থানা পুলিশ কর্তৃক ০৬টি স্মার্ট ফোন উদ্ধার

৪৭

মোঃআজিজুর রহমান স্টাফ রিপোর্টারঃ চুয়াডাঙ্গা সদর থানাধীন এতিমখানা পাড়ার সাজ্জাতুল সিরাজ (OPPO A92), দৌলতদিয়াড় হামিদুল ইসলাম (REDMI NOTE 9),মিলন হোসেন (OPPO A12), জোয়ার্দ্দার পাড়ার শরিফুল আরিফিন জোয়ার্দ্দার (SAMSUNG GALAXY M30), কেদারগঞ্জ সিএ্যান্ডবি পাড়ার আরমান আলী (OPPO A15s) এবং আলমডাঙ্গা কলেজপাড়ার মোল্লা মোঃ জাফর ইকবাল জুয়েল (SAMSUNG GALAXY M02) মডেলের তাদের শখের স্মার্ট মোবাইল ফোন বিভিন্ন সময়ে হারিয়ে যায়।আশপাশ এলাকায় খোঁজাখুজি শেষে চুয়াডাঙ্গা সদর থানায় জিডি করেন। সুযোগ্য পুলিশ সুপার জনাব মোঃ জাহিদুল ইসলাম মহোদয়ের নির্দেশে এবং জনাব মোহাম্মদ মহসিন (পিপিএম-বার)অফিসার ইনচার্জ, চুয়াডাঙ্গা সদর থানা, চুয়াডাঙ্গা’র সহযোগীতায় চুয়াডাঙ্গা সদর থানায় কর্মরত চৌকস অফিসার এএসআই (নিঃ) মোঃ আলতাফ হোসেন তথ্য প্রযুক্তির সর্বোচ্চ ব্যবহার করে আন্তরিকতার সাথে মোবাইল ফোনগুলি উদ্ধারের চেষ্টা চালিয়ে যান। অবশেষে উক্ত হারানো মোবাইল ফোনগুলি বিঃ বাড়ীয়া, নাটোর, পাবনা, কুষ্টিয়া এবং চুয়াডাঙ্গা’র বিভিন্ন স্থান থেকে উদ্ধার করতে সক্ষম হন।

পুলিশ সুপার মহোদয় অদ্য (১১ জানুয়ারী) সকাল ১১ঘটিকায় তাঁর অফিসকক্ষে আনুষ্ঠানিকতার মাধ্যমে হারানো মোবাইল ফোনগুলি প্রকৃত মালিকদের হাতে তুলে দেন। এসময় ফোনের প্রকৃত মালিকরা তাদের কষ্টার্জিত উপার্জনে ক্রয়কৃত হারানো শখের মোবাইল ফোনগুলি হাতে পেয়ে আনন্দে আপ্লুত হয়ে পড়েন। তারা বলেন,পুলিশ সুপার স্যার চুয়াডাঙ্গায় যোগদানের পর থেকেই মানবিক, সামাজিক ও আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতিতে দৃশ্যমান অবদান রেখে চলেছেন।পুলিশ অফিসার-ফোর্স দিনরাত পরিশ্রমের ফলে আমরা আমাদের স্বাভাবিক জীবন জীবিকা নির্বিগ্নে করতে পারছি।আমাদের হারানো শখের ফোনগুলি পুলিশ সুপার মহোদয়ের আন্তরিকতায় এত দ্রুত ফিরে পাবো কখনো ভাবতে পারিনি। চুয়াডাঙ্গা জেলা পুলিশ তথা বাংলাদেশ পুলিশের সকল সদস্যদের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন।

এই বিভাগের আরও খবর